1. bkhabor24@gmail.com : Md Abu Naim : Md Abu Naim
  2. jmitsolution24@gmail.com : support :
শনিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ১০:০৩ অপরাহ্ন

নারায়ণগঞ্জে দুই কাউন্সিলর প্রার্থী গ্রেফতার, এলাকায় উত্তেজনা

  • Update Time : বুধবার, ১৩ জানুয়ারী, ২০২১
  • ৪২ জন পঠিত

নারায়ণগঞ্জ থেকে আনিছুর রহমান আনিছ,

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে তারাব পৌরসভা নির্বাচনকে ঘিরে দুই কাউন্সিলর প্রার্থীর মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় বুধবার সকালে রূপগঞ্জ থানায় পৃথক মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ ঘটনায় দুই কাউন্সিলর প্রার্থী আনোয়ার হোসেন ও রুহুল আমিন ফরাজীসহ ৬ জনকে বুধবার সকালে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত নোয়াপাড়া এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। এলাকায় টহলরত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। ইতোমধ্যে এলাকাবাসী ও ভোটারদের মাঝে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে। বুধবার সকালে গ্রেফতারকৃতদের নারায়ণগঞ্জ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। বুধবার সকালে জেলা দায়রা জজ আদালত থেকে দুই প্রার্থী মুচলেকা দিয়ে জামিন নেন। সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আহমেদ হুমায়ন কবিরের আদালতে দুই প্রার্থী নির্বাচনের আগে সহিংশতার ঘটনা ঘটাবে না মর্মে মুচলেকা দিয়ে জামিন পান। দুই প্রার্থীর জামিনের বিষয়টি নিশ্চিত করে কোর্ট পুলিশের পরির্দশক আসাদুজ্জামান। উল্লেখ, মঙ্গলবার বিকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ঐ দুই কাউন্সিলর প্রার্থীর মধ্যে দফায় দফায় ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

 

রূপগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মাহমুদুল হাসান জানান, মঙ্গলবারের সন্ধ্যার ঘটনায় বুধবার সকালে রূপগঞ্জ থানায় পৃথক দুটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। কাউন্সিলর প্রার্থী আনোয়ার হোসেনের পক্ষে শাহজালাল মিয়া বাদী হয়ে নামীয় ১৫ জনসহ অজ্ঞাত আরো ৩০ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। অপরদিকে, আরেক প্রার্থী রহুল আমিন ফরাজীর পক্ষে নাজমুল হাসান বাদী হয়ে নামীয় ১৬ জনসহ ৭০ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। পুলিশ তারাব পৌরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী আনোয়ার হোসেন ও রুহুল আলম ফরাজীসহ ৬ গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারকৃত অন্যরা হলেন-রাজিব, সোহেল, সাইদুর ও হাবিবুর রহমান। ঘটনার পর থেকে নোয়াপাড়া এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। স্থানীয় ভোটারদের মাঝে দেখা দিয়েছে শঙ্কা।

 

দফায় দফায় ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, ইটপাটকেল নিক্ষেপ ও রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। বিকাল সাড়ে ৪ টা থেকে শুরু হওয়া সংঘর্ষ পুলিশের সহযোগীতায় রাত সাড়ে ৭ টায় নিয়ন্ত্রণে আসে। সংঘর্ষে এক কাউন্সিলর প্রার্থী তার প্রতিদ্ধন্ধী কাউন্সিলর প্রার্থীর শ^শুড়ের দুটি টেক্সটাইল কারখানাসহ বেশ কয়েকটি গাড়ি ভাংচুর করে। এসময় একটি পিকআপ ভ্যানে আগুন ধরিয়ে দেয়। সংঘর্ষে উভয়পক্ষের প্রায় ৬৫ জন আহত হয়েছে। রাত ৮ টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে তারাব পৌরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ডের নোয়াপাড়া এলাকায়। উল্লেখ, নির্বাচনকে ঘিরে তারাব পৌরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ডের দুই কাউন্সিলর প্রার্থী আনোয়ার হোসেন ও রুহুল আলম ফরাজী এবং তাদের সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটনা ঘটে। এত উভয় পক্ষের ৬৫ জন আহত হয়। ভাংচুর করা হয় কারখানা, প্রাইভেটকার ও মোটরসাইকেল। রূপগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মাহমুদুল হাসান বলেন, দুই কাউন্সিলর প্রার্থীসহ ৬ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এলাকায় টহলরত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2020
Design & Develpment by : JM IT SOLUTION