1. bkhabor24@gmail.com : Molla Mohiuddin : Molla Mohiuddin
  2. jmitsolution24@gmail.com : support :
মঙ্গলবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২০, ০২:১১ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
থানায় আগত নারী ও শিশুর প্রতি সংবেদনশীল আচরণ করতে হবে” পুলিশ সুপার মুজিব বর্ষ ও গোপালগঞ্জ মুক্ত দিবস উপলক্ষে উপহার পাঠালেন ডিআইজি হাবিবুর রহমান বিরামপুর পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে বি,এন,পি’র সভাপতি হুমায়ুন কবির  মনোনয়ন প্রত‍্যাশী বিরামপুরে পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগের ২নং ওয়ার্ড আহবায়ক কমিটি গঠন কবিতা” বঙ্গবন্ধু  আজো আমি বেঁচে আছি কুষ্টিয়ার খোকসায় মুর্শেদ আউট, তারিকুল ইন গোপালগঞ্জের প্রেসক্লাবে বঙ্গবন্ধু কর্নার উদ্বোধন করলেন প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যান বিচারপতি মমতাজ উদ্দিন আহমেদ মুক্তিযোদ্ধাকে কুপিয়ে জখম করার ঘটনায়, ইউপি চেয়ারম্যানসহ গ্রেফতার ৫ জয়পুরহাটে পাঁচবিবিতে শত্রুতার আগুন কৃষকের সবজি ক্ষেতে কুষ্টিয়ায় আন্তজেলা ডাকাত দলের মূল হোতাসহ আটক ৩

গৌরনদী হাসপাতালে এক ডাক্তার আট মাস অনুপস্থিত

  • Update Time : শুক্রবার, ১৩ নভেম্বর, ২০২০
  • ৪৪ জন পঠিত

গৌরনদী থেকে বিশ্বজিত সরকার বিপ্লব,

বরিশালের গৌরনদী উপজেলার জনগুরত্বপুর্ন বাটজোর ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কেন্দ্রের দায়ীত্বপ্রাপ্ত ডাক্তার শুভ্রা দাস আট মাস হাসপাতালে নাই। ছুটি বা কোন কারন ছাড়াই দীর্ঘদিন ডাক্তারের অনুপস্থিতি ও অবহেলার কারনে, জনবহুল এ ইউনিয়নের হাজার হাজার সাধারন মানুষ স্বাস্থ্য সেবা ঘেকে বঞ্চিত হচ্ছেন ।

জানা গেছে ডাক্তার শুভ্রা দাস ২০১৯ সালের ১২ ডিসেম্ভর ওই স্বাস্থ্য কেন্দ্রে যোগদান করেন। সে সময়ও তিনি নিয়মিত স্বাস্থ্য কেন্দ্রে যেতেন না। কোন কারন ছাড়াই গত আট মাস যাবত তিনি হাসপাতালে একদিনও আসেননি। বিধি অনুযায়ী কোন ছুটির আবেদন পর্যন্ত করেননি। উর্দ্ধতন কতৃপক্ষ বিষয়টি জানলেও এ বিষয়ে রহস্যজনক কারনে কোন ব্যবস্থা নিচ্ছেনা। ন্থানীয় বাসিন্ধারা বলেন ডাক্তার না থাকায় এলাকার গরীব রোগীরা স্বাস্থ্যসেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন।  ওই স্বাস্থ্য কেন্দ্রে দায়িত্বরত উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার (স্যাকমো) সিনিগ্ধা রায় বলেন,স্বাস্থ্য সেবায় সমস্যা হচ্ছে তবে বিষয়টি উর্দ্ধতন কতৃপক্ষ সবই জানেন।

ডাক্তার শুভ্রা দাসের বক্তব্য নেয়ার জন্য তার ব্যবহৃত মুঠোফোনে একাধীকবার কল করা হলেও তিনি কল রিসিভ করেননি। তাকে মোবাইল ফোনে ক্ষুদে বার্তা পাঠানো হলেও তিনি কোন উত্তর দেননি। গতকাল বুধবার উল্লেখিত ঘটনার সত্বতা নিশ্চিত করে গৌরনদী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার সাঈয়েদ মোহাম্মাদ আমরুল্লাহ বলেন,বিষয়টি লিখিতভাবে একাধীকবার উর্দ্ধতন কতৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। তিনি ডাক্তার (শুভ্রা দাস) গত আট মাস কর্মস্থলে অনুপস্থিত আছেন। অথচ তিনি ছুটির জন্য একটি আবেদনও করেননি।

 

 

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2020
Design & Develpment by : JM IT SOLUTION