1. bkhabor24@gmail.com : Molla Mohiuddin : Molla Mohiuddin
  2. jmitsolution24@gmail.com : support :
মঙ্গলবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২০, ০৩:০৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম :

প্রশাসনের বাঁধা উপেক্ষা করে নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহার করে রাস্ত নির্মাণের অভিযোগ

  • Update Time : শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর, ২০২০
  • ৩৫ জন পঠিত

বরিশাল থেকে এস এম ওমর আলী সানী,

বরিশালের গৌরনদী উপজেলার হোসনাবাদ এলাকায় প্রশাসনের বাঁধা উপেক্ষা করে নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহার করে রাস্তা নির্মাণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহার করে সাব ঠিকাদারের লোকজন রাস্তা নির্মাণ শুরু করলে একাধিকবার স্থানীয়রা ও উপজেলা প্রকৌশলী অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা কাজ বন্ধ করে দেন। বাঁধা উপেক্ষা করে গতকাল বুধবার সকালে ক্ষমতার প্রভাব খাটিয়ে অতিরিক্ত শ্রমিক নিয়ে নির্মান কাজ শুরু করেন সাব ঠিকাদার ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আঃ মান্নান মৃধা। এতে ক্ষুব্ধ স্থানীয় বাসিন্দারা।

উপজেলা স্থানীয় প্রকৌশল অধিদপ্তর সুত্রে জানা গেছে, উপজেলার সরিকল ইউনিয়নের হোসনাবাদ ষ্টিমারঘাট হইতে হোসনাবাদ হাট পর্যন্ত ৬.৩০ কিলোমিটার দৈঘ্য রাস্তাটি স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের বিডিআরআইডিপি প্রকল্পের কর্মসুচির আওতায় ২০১৯-২০২০ অর্থবছরে কার্যাদেশ দেয়া হয়। ৬৪ লাখ টাকা ব্যয়ে এ রাস্তাটি বরিশালের মেসার্স মাদার ইঞ্জিনিয়ার এর মালিক আব্দুল রাজ্জাক কার্যাদেশ পায়। মেসার্স মাদার ইঞ্জিনিয়ার এর মালিক আব্দুল রাজ্জাক পরবর্তীতে সাব ঠিকাদার হিসেবে উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আঃ মান্নান মৃধার কাছে কমিশনে বিক্রি করে দেন।

স্থানীয়রা অভিযোগ করেন, সেপ্টেম্বর মাসে মান্নান মৃধা ইটের ২ ও ৩ নম্বর ডাস্ট খোয়াসহ নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহার করে রাস্তাটি নির্মাণ কাজ শুরু করেন। কাজের শুরু থেকেই ২-৩ নম্বর ইট ও বালুর পরিবর্তে মাটি ব্যবহার করে কাজ করে আসায় স্থানীয়দের আপত্তি ও উপজেল প্রকেীশলী অধিদপ্তরের কর্মকর্তাদের বাঁধার মুখে সাময়িক কাজ বন্ধ রাখে। পরবর্তীতে গতকাল বুধবার সকালে মান্নান আকন ২০ থেকে ২৫ জন শ্রমিক নিয়ে নিন্মমানের সামগ্রী দিয়ে কাজ শুরু করেন। ্স্থানীয়রা বাঁধা দিলে তা উপেক্ষা করে কাজ চালিয়ে যায়। খবর পেয়ে উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ অহিদুর রহমান ঘটনাস্থলে পৌঁছে কাজ বন্ধ করে দেন।
এ প্রসঙ্গে উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ অহিদুর রহমান বলেন, সাব ঠিকাদার আঃ মান্নান মৃধা নিন্ম সামগ্রী দিয়ে রাস্তার কাজ পূনরায় শুরু করায় আমি কাজ বন্ধ করে দিয়ে ঠিকাদারকে নোটিশ প্রদান করেছি। এর পরে কাজ করলে তার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।  অভিযোগের ব্যাপারে সাব ঠিকাদার উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আঃ মান্নান মৃধা মুঠো ফোনে বলেন, রাস্তার কাজের জন্য ব্যবহৃত খোয়ার মধ্যে শতকরা ১০ ভাগ ডাস্ট খোয়া থাকতে পারে। তার পরেও উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ অহিদুর রহমান আমার কাজ বন্ধ করে দিয়েছেন।

 

 

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2020
Design & Develpment by : JM IT SOLUTION